কুড়িগ্রামের বন্যার্তদের মাঝে যুব মজলিসের ত্রাণ বিতরণ

হাবীবুল্লাহ সিরাজ : বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে চলছে ভয়াবহ বন্যা দুর্যোগ। স্মরণাতীত কালের সবচেয়ে বড়ো মানবিক বিপর্যয়। কুড়িগ্রাম ভুরুঙ্গামারী রাজারহাট রৌমারী চিলমারী গাইবান্ধা সাঘাটা সাদুল্লাহপুর গোবিন্দগঞ্জ নিলফামারী সিরাজগঞ্জসহ অসংখ্য এলাকা প্লাবিত। এখনো পানিবন্ধি আছে অজস্র লোক।

কৃষিভূমি প্লাবিত হওয়ার সাথে সাথে ঘরবাড়ী লোকালয় প্লাবিত। বন্যায় হারাতে বসেছে তাদের জীবনের সর্বস্ব। প্লাবিত এলাকাগুলো কৃষি নির্ভর বিধায় বিপর্যয়টা অন্যসময়ের তুলনায় বড়ো আকারের। এসব দুর্গত এলাকায় ত্রাণ নিয়ে পৌঁছেছেন অনেকে।

মানবিক এই বিপর্যয়ে বন্যা দুর্গতদের পাশা থাকার কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস খ-শাখা। গত রবিবার যুব মজলিস খ-শাখার উদ্যোগে ত্রান বিতরণর করা হয় কুড়িগ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত অন্যতম এলাকা ধরলা পাড়ে।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন যুব মজলিস ঢাকা মহানগরীর দায়িত্বশীল মাওলানা রাকিবুল ইসলাম রকিব ও মাওলানা আব্দুল্লাহ আশরাফ। এ সময়ে তাদের থেকে প্রায় ২৫০ টি অসহায় পরিবার ত্রাণ গ্রহণ করে। ত্রাণ বিতরণে দ্বিতীয় কেন্দ্র ছিল আন্ধারিঝাড়ে দুধকুমার নদী পাড়ের এলাকা। ত্রাণের আইটেম ছিল চাল, ডাল, আলু, পেয়াজ, লবণ, পানিবাহিত রোগের ঔষুধসামগ্রী, ওরসেলাইন মোম ও একটি করে দিয়াশলাই। ত্রাণ বিতরণের দ্বিতীয় স্পট ছিল দুর্গম ও নিম্নাঞ্চল রায়গঞ্জে। এখানেও উল্লেখযোগ্য পরিমাণ অসহায় পরিবার ত্রাণ গ্রহণ করে।

শেয়ার করুন
Scroll to Top